আজ, রবিবার | ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | রাত ১১:০৩

ব্রেকিং নিউজ :
নবীজীকে কটুক্তি: মাগুরার রামচন্দ্রপুর গ্রামে দুটি বাড়িতে আগুন-পুলিশের গুলিতে অর্ধশত আহত মাগুরার এমপি সাকিব আল হাসানের নামে জুয়ার ভূয়া বিজ্ঞাপন মাগুরায় ফিলিস্তিন সংহতি সমাবেশ শ্রীপুরে সমাজসেবা কার্যালয়ের অনুদানের অর্থ বিতরণ মাগুরার শ্রীপুরে দুটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ দু’জন আটক সাংবাদিক লক্ষণ চন্দ্র মন্ডলের অন্তেস্টিক্রিয়া সম্পন্ন মহম্মদপুরে মসজিদ নির্মাণের টাকা আত্মসাতের ঘটনায় গ্রামে উত্তেজনা মাগুরায় অসহায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে সরকারি অনুদান বিতরণ মাগুরা শহরে চারতলা ভবন থেকে লাফিয়ে অকৃতকার্য পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা! আবারো সিআইপি সম্মাননা পেলেন বিজনেস আইকন মাগুরার আব্দুল মুক্তাদির

মধুমতি নদী পাড়ে তিন জেলার লক্ষ মানুষের ঢল

মাগুরা প্রতিদিন : মাগুরার মহম্মদপুরে মধুমতি নদীতে হয়ে গেলো আবহমান বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা।

শনিবার বিকালে মহম্মদপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত “বিহারী লাল শিকদার স্মৃতি নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা” ঘিরে অনুষ্ঠিত মেলায় নদী পাড়ের মাগুরা-ফরিদপুর-নড়াইলসহ পার্শ্ববর্তি বিভিন্ন জেলার লক্ষ মানুষের মহামিলন ঘটে।

প্রতিবছর নভেম্বর মাসের ৪ তারিখে মাগুরার মধুমতি নদীতে অনুষ্ঠিত হয় এই নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা। যেখানে মাগুরা ছাড়াও ফরিদপুর, নড়াইল, গোপালগঞ্জ, রাজবাড়ি, মাদারিপুর, কুষ্টিয়াসহ বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত নৌকা প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। আর এই বাইচ উপলক্ষে মধুমতি নদীর শেখ হাসিনা সেতুকে ঘিরে উভয় পাড়ের লক্ষ মানুষের ঢল নামে। উত্সবে মেতে ওঠে তারা।

ফরিদপুরের বোয়ালমারি থেকে আগত দর্শনার্থী অসীম বিশ্বাস বলেন, আমি দেশের অনেক মেলাতেই অংশ নিয়েছি। ঢাকা কিংবা পশ্চিমবঙ্গেও অনেক মেলাতে গিয়েছি। কিন্তু মাগুরার মধুমতি নদীর পাড়ে যে এত বড় মেলা দেখা হয়নি। একই রকম অভিব্যক্তি প্রকাশ করেছেন বিভিন্ন জেলা থেকে আগত অন্যান্য দর্শনার্থীরা।

আয়োজকরা জানান, অতিতে বিশেষত: বর্ষাকালে যখন মানুষের হাতে কোনো কাজ থাকে না সে সময় নদী পাড়ের মানুষেরা এমন আয়োজন করে থাকতো। কিন্তু কালের বিবর্তনে এসব হারিয়ে যেতে বসেছে। আবহমান বাঙলার সেই ঐতিহ্যকে টিকিয়ে রাখতে ২০১৪ সাল থেকে নিয়মিত মধুমতি নদীতে আয়োজন হচ্ছে এই নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা ও উত্সব। আর এটির নিয়মিত আয়োজনে সরকারি পৃষ্টপোষকতার দাবি করেছেন তারা।

নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা ও উৎসব আয়োজন কমিটির সাধারণ সম্পাদক মহম্মদপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিলন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে নির্মিত মধুমতি নদীর সেতুকে ঘিরে আয়োজিত উত্সবে প্রতি বছরই নদী তীরবর্তি ৩টি জেলার মানুষের মিলন ঘটে। চিরায়ত বাঙলার এই ঐতিহ্যকে টিকিয়ে রাখতে রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতার জন্যে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

দুপুরে মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ডক্টর বিরেন শিকদার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মহম্মদপুরের ঐতিহ্যবাহি এই নৌকা বাইচের উদ্বোধন করেন। এ সময় মাগুরা জেলা প্রশাসক আবু নাসির বেগ, পুলিশ সুপার মশিউদ্দৌলা রেজা উপস্থিত ছিলেন।

বাইচ উত্সব প্রসঙ্গে প্রধান অতিথি বলেন, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে এবং স্থানীয় বিভিন্ন মহলের সহযোগিতায় আয়োজিত নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা ও উত্সব দিনে দিনে নদী তীরবর্তি মানুষের প্রাণের উত্সবে পরিনত হয়ে উঠেছে। এলাকার মানুষও অত্যন্ত আনন্দিত। তারা আনন্দ বিনোদনের একটি মাধ্যম পেয়েছে। এজন্যে আমরাও গর্বিত। বাঙালির প্রাচীন এই সংস্কৃতি লালনের সুযোগ পেয়ে আমরাও আনন্দিত।

নৌকা বাইচে শেষে সন্ধ্যায় প্রধান অতিথি প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন। এ সময় মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট আবদুল মান্নান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল্লা হেল কাফি সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

এবারের নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত ২৪টি নৌকা দুটি গ্রুপে ভাগ হয়ে অংশ নেয়। মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার কালিশঙ্করপুর ও গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানি উপজেলার নৌকা পৃথক পৃথক বিভাগ থেকে প্রথম স্থান অর্জন করে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2022
IT & Technical Support : BS Technology