আজ, মঙ্গলবার | ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | সন্ধ্যা ৬:১৫

ব্রেকিং নিউজ :
মাগুরায় প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনের প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ মাগুরায় নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন জাহিদুর রেজা চন্দন ও নবীব আলী মহম্মদপুরে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন শালিখায় ৫ জনের মনোনয়ন পত্র জমা স্মৃতির আয়নায় প্রিয় শিক্ষক কাজী ফয়জুর রহমান স্মৃতির আয়নায় প্রিয় শিক্ষক কাজী ফয়জুর রহমান মাগুরা সদরে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ৭ শ্রীপুরে ৪ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও রাজনীতিক কাজী ফয়জুর রহমানের ইন্তেকাল মাগুরার শ্রীপুরে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা! শায়লা রহমান সেতুর নির্মম মৃত্যুর বিচারের দাবিতে জাসদের মানববন্ধন সমাবেশে মাগুরায় ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মৃত্যুর অভিযোগে মামলা-মানববন্ধন

মাগুরার নন্দলালপুর গ্রামে দল বদলের জেরে লিটন খুন

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : মাগুরায় সদর উপজেলার নন্দলালপুর গ্রামে সামাজিক দলাদলির জেরে জাকির হোসেন লিটন (৫২) নামে এক ব্যক্তি খুন হয়েছে। তিনি ওই গ্রামের মুন্সি মনজুর আহমেদের ছেলে।

এলাকাবাসি জানায়, সদর উপজেলার হাজরাপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা কবির হোসেন এবং সাবেক চেয়ারম্যান সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নানের নেতৃত্বে দু’ভাগে বিভক্ত। সামাজিক দলাদলি নিয়ে বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পর উভয় পক্ষের মধ্যে ৮-১০টি রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ সোমবার রাতে ওই একই দলাদলি নিয়ে প্রতিপক্ষ সামাজিক দলের হামলায় নির্মমভাবে খুন হয়েছে জাকির হোসেন লিটন।

স্থানীয়রা জানায়, জাকির হোসেন লিটন বিএনপি কর্মী হলেও স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা শরিফুল ইসলামের সঙ্গে সামাজিক দলভূক্ত ছিল। আর শরিফুল ইসলাম সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান সমর্থিত সামাজিক দলের নেতা। কিন্তু গত ২৯ সেপ্টেম্বর লিটন বেশকিছু লোকজন নিয়ে তার সামাজিক দল ছেড়ে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেনের দলে যোগ দেয়। শুধু তাই নয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিনে সে ফুলের মালা নিয়ে বিএনপির রাজনীতি ছেড়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামীলীগেও যোগ দেয়। কিন্তু তার সামাজিক দল পরিবর্তনের এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয় শরিফুল ইসলাম গ্রুপ। যা নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

সোমবার সকালে গ্রামে স্যালো ইঞ্জিন থেকে পানি নেওয়ার ঘটনা নিয়ে আওয়ামীলীগ নেতা শরিফুল ইসলামের সঙ্গে জাকির হোসেন লিটনের বাক বিতণ্ডা হয়। বিষয়টি সেখানেই থেমে গেলেও রাত ৯টার দিকে এলাকার অন্যান্যদের সঙ্গে গ্রামের তেমাথায় একটি দোকানে লিটনকে পেয়ে অতর্কিত হামলা চালানো হয়। এ সময় বাধা দিতে গেলে ছমিরুল, মিলন এবং হেলেন নামে আরও তিনজন আহত হয়।

এ ঘটনার পর তাদের মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে লিটনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় রাতেই তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। কিন্তু সেখানে পৌঁছানের আগেই সাড়ে ১১ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জয়নাল আবেদিন জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা দায়ের হয়নি। তবে এলাকার আইন-শৃক্সখলা নিয়ন্ত্রণে পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি এ ঘটনায় জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2022
IT & Technical Support : BS Technology