আজ, মঙ্গলবার | ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | দুপুর ২:১৫

ব্রেকিং নিউজ :
শালিখা-মহম্মদপুরে অ্যাড শ্যামল-অ্যাড মান্নান উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত শ্রীপুরের বরিশাটে সংগ্রাম ও কাজী তারেক পক্ষীয়দের মধ্যে দিনভর সংঘর্ষ মাগুরার বড়খড়ি গ্রামে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা! দ্বিমুখী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শালিখা মহম্মদপুর উপজেলার নির্বাচন নবীজীকে কটুক্তি: মাগুরার রামচন্দ্রপুর গ্রামে দুটি বাড়িতে আগুন-পুলিশের গুলিতে অর্ধশত আহত মাগুরার এমপি সাকিব আল হাসানের নামে জুয়ার ভূয়া বিজ্ঞাপন মাগুরায় ফিলিস্তিন সংহতি সমাবেশ শ্রীপুরে সমাজসেবা কার্যালয়ের অনুদানের অর্থ বিতরণ মাগুরার শ্রীপুরে দুটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ দু’জন আটক সাংবাদিক লক্ষণ চন্দ্র মন্ডলের অন্তেস্টিক্রিয়া সম্পন্ন

রাঘবদাইড় গ্রামে এক শাড়িতেই নব দম্পত্তির গলায় ফাঁস

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : মাগুরার রাঘবদাইড় গ্রামে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক শাড়িতোই ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক নব দম্পতি।

নিহতরা হচ্ছে নিরব বিশ্বাস (২০) এবং শ্রাবণি বিশ্বাস (১৮)।

এলাকাবাসী জানায়, তিন সপ্তাহ আগে মাগুরার সদর উপজেলার রাঘবাইদড় গ্রামের রবীন্দ্রনাথ বিশ্বাসের ছেলে নিরব পার্শ্ববর্তি গ্রাম শালিখা উপজেলার ধনেশ্বরগাতি’র বিশ্বজিত বিশ্বাসের মেয়ে শ্রাবণিকে কালিমন্দিরে মন্ত্র পড়িয়ে বউ করে বাড়িতে নিয়ে যায়।

ভালোবাসার সম্পর্কের এই বিয়ের ঘটনাটি ছেলের বাড়ির লোকেরা মেনে নিলেও একেবারেই নারাজ ছিলেন শ্রাবণির বাড়ির লোকেরা। শুধু তাই নয়, তারা মেয়ে শ্রাবণি এবং তার ¯^ামী নিরবের নতুন দাম্পত্য জীবনে গত তিন সপ্তাহে নানা মানসিক কষ্টের কারণ হয়ে দেখা দেয়।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যার আগে বাড়ির অন্যান্যরা যখন ঘরের বাইরে এমন সময় নিরব এবং শ্রাবণি নিজেদের শোবার ঘরে আড়ার সাথে একই শাড়িয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে বাড়ির লোকজন ঘরে ফিরে দরজা বন্ধ দেখতে পায়। এ সময় এলাকাবাসির সহায়তায় তারা দরজা ভেঙ্গে তাদেরকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে।

মাগুরা সদর থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, এলাকাবাসির কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করার পর লাশ দুটি উদ্ধার করা হয়েছে।

রাতেই ময়না তদন্তের জন্যে লাশ মর্গে পাঠিয়ে প্রাথমিকভাবে একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। তবে ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়া গেলে পরবর্তি আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানান।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2022
IT & Technical Support : BS Technology