আজ, শনিবার | ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | রাত ৮:৩৬

ব্রেকিং নিউজ :
শালিখা-মহম্মদপুরে অ্যাড শ্যামল-অ্যাড মান্নান উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত শ্রীপুরের বরিশাটে সংগ্রাম ও কাজী তারেক পক্ষীয়দের মধ্যে দিনভর সংঘর্ষ মাগুরার বড়খড়ি গ্রামে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা! দ্বিমুখী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শালিখা মহম্মদপুর উপজেলার নির্বাচন নবীজীকে কটুক্তি: মাগুরার রামচন্দ্রপুর গ্রামে দুটি বাড়িতে আগুন-পুলিশের গুলিতে অর্ধশত আহত মাগুরার এমপি সাকিব আল হাসানের নামে জুয়ার ভূয়া বিজ্ঞাপন মাগুরায় ফিলিস্তিন সংহতি সমাবেশ শ্রীপুরে সমাজসেবা কার্যালয়ের অনুদানের অর্থ বিতরণ মাগুরার শ্রীপুরে দুটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ দু’জন আটক সাংবাদিক লক্ষণ চন্দ্র মন্ডলের অন্তেস্টিক্রিয়া সম্পন্ন

মাগুরায় মানববনন্ধনের ব্যানার ছিনতাই, সাংবাদিকদের উপর হামলা

ছাত্রলীগ কর্মীরা ব্যানার কেড়ে নেওয়ার পর ব্যানার ছাড়াই গ্রামবাসীর মানববন্ধন

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : মাগুরায় শ্রীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক হুমায়নুর রশিদ মুহিতের অত্যাচার নির্যাতনের বিরুদ্ধে রবিবার প্রেসক্লাবের সামনে দাঁড়ানো মানববন্ধন থেকে ব্যানার কেড়ে নিয়ে গেছে জেলা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

এ সময় ছবি তুলতে গেলে তারা দৈনিক অধিকার পত্রিকার সাংবাদিক হেলাল হোসেনসহ উপস্থিত কয়েক সাংবাদিকের উপর হামলা চালিয়েছে।

দুপুর ১ টার দিকে মানববন্ধনে অংশ নেয়া নাকোল ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেন, শুক্রবার সকালে শ্রীপুর উপজেলার ওয়াপদা বাজার এলাকায় মান্দারতলা গ্রামের ইয়াসিন শেখ নামে এক ব্যক্তি শাবলগাছা গ্রামের আলিয়ার রহমানের কাছ থেকে এক খণ্ড জমি ক্রয় করে বসত বাড়ি নির্মাণ করছিলেন। এ সময় শ্রীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নাকোল ইউপি চেয়ারম্যান সেখানে উপস্থিত হয়ে জমি ছেড়ে দেওয়ার কথা বলে ইয়াসিনের উপর হামলা চালায়। পরে জমির বিক্রেতা দরিদ্র ভ্যান চালক আলিয়ার রহমানকে ওই জমি ইয়াসিনের কাছে বিক্রির দায়ে বেদম মারপিট করে হাত ভেঙ্গে দেয়।

নির্যাতনের শিকার ইয়াসিন শেখের মা নূর জাহান বলেন, মুহিত চেয়ারম্যান আমার ছেলেকে মারধর করেছে। এ বিষয়ে ছেলে শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করতে গেলে থানা মামলাটি নেওয়ার ক্ষেত্রে গড়িমসি করে। যে কারণে বাধ্য হয়ে ওই ঘটনার বিচার ও নিরাপত্তার দাবিতে প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করতে এসেছিলাম। কিন্তু জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক রমেশ কুমার বৈদ্যসহ বেশ কয়েকজন হামলা চালিয়ে ব্যানার কেড়ে নিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর এলাকাবাসি বাধ্য হয়ে প্রেসক্লাব ভবনের প্রবেশ গেটে দাঁড়িয়ে মানববন্ধন করে। পরে মাগুরা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে স্মারকলিপি দিয়েছে তারা।

এ বিষয়ে মাগুরা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মীর মেহেদি হাসান রুবেল বলেন, বিচ্ছিন্নভাবে কেউ ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত হতে পারে। কিন্তু এর সঙ্গে ছাত্রলীগের রাজনীতির কোনো সম্পর্ক নেই।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2022
IT & Technical Support : BS Technology