আজ, মঙ্গলবার | ৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | বিকাল ৩:২৬


শ্রীপুরে রঙিন ফুলকপি আবাদে কৃষকদের আগ্রহ বাড়ছে

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : মাগুরার শ্রীপুরে প্রথমবারের মতো রঙিন জাতের ফুলকপি চাষে ব্যাপক সফল হয়েছেন সুশেন বালা ও দীপা বালা নামের দুই চাষি।

উপজেলার নাকোল ইউনিয়নের হাজরাতলা গ্রামে ৪০ শতক জমিতে সোনালি, বেগুনি, লাল, ব্রো কলি, কমলাসহ সাত রঙয়ের ফুলকপি চাষ করেছেন তারা।

রঙিন ফুলকপি দেখতে যেমন সুন্দর, তেমনি খেতেও সুস্বাদু। পুষ্টিগুণে ভরপুর রঙিন জাতের এই ফুলকপিগুলির দাম সাধারণ জাতের ফুলকপির চেয়ে চার গুণ বেশি। এই ফুলকপিগুলো দেখতে প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ ভিড় করছেন সুশেন বালা ও দীপা বালার ক্ষেতে।

কৃষক সুশেন বালা জানান, উপজেলা কৃষি অফিসের সহযোগিতায় তিনি ২০ শতক জমিতে রঙিন ফুলকপি চাষ করেন। সাধারণ সাদা জাতের ফুলকপি বাজারে ২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও তিনি এই ফুল কপি চার গুণ বেশি দামে অর্থাৎ ৬০ টাকা কেজিতে বিক্রি করছেন। নতুন জাত ও দাম বেশি হওয়ায় আগামী মৌসুমে তিনি আরো বেশি জমিতে এই ফুলকপি চাষ করবেন বলে জানান।

কৃষাণী দীপা বালা জানান, শ্রীপুর উপজেলা কৃষি অফিস থেকে দেওয়া বীজ ও সার নিয়ে তিনি ২০ শতক জমিতে সোনালি ও বেগুনিসহ বিভিন্ন রঙের নতুন জাতের এই ফুলকপি চাষ করেন। সাধারণ জাতের ফুলকপির মত এর ফলনও ভালো হয়েছে।

স্থানীয় দুই চাষীর নতুন জাতের ফুলকপির সফল আবাদ দেখে একইগ্রামের কৃষক মৃনাল কান্তি সহ আরো অনেকে উৎসাহ প্রকাশ করেছেন।

শ্রীপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সালমা জাহান নিপা জানান, রঙিন ফুলকপির পুষ্টিগুণ ও বাজার মূল্য অনেক বেশি। স্থানীয় চাষীদের মধ্যে এই আবাদের প্রতি আগ্রহ দেখা যাচ্ছে। আগামীতে উপজেলায় রঙিন জাতের ফুলকপির চাষ বৃদ্ধি পাবে বলে আশা  করা যাচ্ছে।

শ্রীপুর উপজেলায় এ বছর কৃষি অফিসের মাধ্যমে পরীক্ষামূলকভাবে ৭টি রঙের কপির আবাদ হয়েছে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2022
IT & Technical Support : BS Technology