আজ, শনিবার | ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | রাত ১১:১৪

ব্রেকিং নিউজ :

শ্রীপুর উপজেলায় নির্বাচিত চেয়ারম্যান রাজন ৪৩টি কেন্দ্রে প্রথম হয়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক : ৮ মে বুধবার অনুষ্ঠিত মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৫৭টি কেন্দ্রের মধ্যে ৪৩টি কেন্দ্রে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে প্রথম হয়েছেন শরীয়াত উল্লাহ হোসেন মিয়া রাজন ।

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মাগুরার আলোচিত চেয়ারম্যান প্রার্থী শরীয়ত উল্লাহ হোসেন মিয়া রাজন মটর সাইকেল প্রতীকে ৪৪ হাজার ৯৪৭ ভোট পেয়ে প্রথমবারের মতো জয়ী হয়েছেন। তিনি মুক্তিযুদ্ধে শ্রীপুর আঞ্চলিক বাহিনীর প্রয়াত অধিনায়ক আকবর হোসেনের কনিষ্ঠ পুত্র।

শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান রাজনের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন এম. এম. মোতাসিম বিল্লাহ সংগ্রাম। তিনি ঘোড়া প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৯ হাজার ২৮১ ভোট।

অন্যদিকে দু’বারের উপজেলা চেয়ারম্যান মিয়া মাহমুদুল গনি শাহীন দোয়াতকলম প্রতীক নিয়ে ১৩ হাজার ৯৬৮ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন।

এবারের ভোট বিশ্লেষণে দেখা যায়, শ্রীপুরের মোট ৫৭ টি কেন্দ্রের মধ্যে ৪৩ টিতে প্রথম হয়েছেন শরীয়ত উল্লাহ হোসেন মিয়া রাজন। বাদ বাকি ১৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ১২টিতে প্রথম হন এম. এম. মোতাসিম বিল্লাহ সংগ্রাম। আর মাত্র ২টি কেন্দ্রে প্রথম হন মিয়া মাহমুদুল গনি শাহীন।

শরীয়ত উল্লাহ হোসেন মিয়া রাজন যে সব কেন্দ্রে প্রথম হন সেগুলো হলো-নবগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চন্ডীখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, জোকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বড়তলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বদনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বিলসোনাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আমলসার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছোট উদাস সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, করুন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শ্রীকোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দরিবিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বারইপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্বশ্রীকোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খামারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দোসতীনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শ্রীপুর সরকারি মহেষচন্দ্র পাইলট উচ্চবিদ্যালয়, শ্রীপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মদরপুর দাখিল মাদ্রাসা, সারঙ্গদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হোগলডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরগোয়ালপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, তখলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সাচিলাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চিলগাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খড়িবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরমহেষপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাটদ্বারিয়াপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যাল গোয়ালদাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চৌগাছি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, রাধানগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কুপড়িয়া-মাঙ্গনডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঘাষিয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সম্মিলিত পঞ্চগ্রাম মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কমলাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সব্দালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কাজলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাখেরা সরকারি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, তারাউজিয়াল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সোনাতুন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সোনাইকুন্ডি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং মাঝাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

এদিকে এম. এম. মোতাসিম বিল্লাহ সংগ্রাম যে ১২টি ভোটকেন্দ্রে প্রথম হন সেগুলো হলোÑকুশা ইছাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শেখ অখিল উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (বড় উদাস), চতুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কোদলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বরিশাট কাজীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বরিশাট ব্যাপারীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দোরারনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আমতৈল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বরালদহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শ্রীপুর হুদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, জোৎ শ্রীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং নাকোল রাইচরণ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র। দুবারের উপজেলা চেয়ারম্যান মিয়া মাহমুদুল গনি শাহীন মাত্র যে দুটি কেন্দ্রে জয়ী হন সেটি হলো টিকারবিলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং রায়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র।

এদিকে একটি কেন্দ্রে রাজন সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন ১৮৩২ (শ্রীকোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়), এম. এম. মোতাসিম বিল্লাহ সংগ্রাম সবচেয়ে বেশি ১৪৯১ ভোট পেয়েছেন বরিশাট ব্যাপারীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে। আর মিয়া মাহমুদুল গনি শাহীন সর্র্বোচচ ভোট ১৬৯৮ ভোট পেয়েছেন টিকারবিলা কেন্দ্রে।
এককেন্দ্রে রাজন সবচেয়ে কম ২৭৬ ভোট পেয়েছেন জোত শ্রীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে। এম. এম. মোতাসিম বিল্লাহ সংগ্রাম সবচেয়ে কম ১১৩টি ভোট পেয়েছেন খামারপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে। অন্যদিকে মিয়া মাহমুদুল গনি শাহীন এককেন্দ্রে সবচেয়ে কম ৪ ভোট পেয়েছেন শ্রীকোল ইউনিয়নের দোসতীনা প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে।

এবারসহ বিগত ২০২৪, ২০১৯ ও ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ভোট বিশ্লেষণে দেখা যায়, প্রথমবারের মতো উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত শরীয়ত উল্লাহ হোসেন মিয়া (রাজন) বেশি ভোটে জয়লাভের কৃতিত্ব দেখিয়েছেন। তিনি নিকটতম প্রতিদ্বন্ধীকে ১৫ হাজার ৬৬৬ ভোটে পরাজিত করে জয়ী হয়েছেন। গত উপজেলা নির্বাচনে (২০১৯) মিয়া মাহমুদুল গনি শাহীন এবং পঙ্কজ কুমার সাহাকে ১৪ হাজার ৩৩৪ ভোটে পরাজিত করেছিলেন। এর আগে ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি নেতা বদরুল আলম হীরো আওয়ামী লীগ নেতা হুমাউন উর রশীদ মুহিতকে পরাজতি করেছিলেন মাত্র ৪ হাজার ৩২৬ ভোটের ব্যবধানে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2022
IT & Technical Support : BS Technology